সারাদেশে ৩ থেকে ৫ মাসব্যাপী ফ্রিল্যান্সিং কোর্স প্রশিক্ষণ, বৃত্তি+চাকরির সুযোগ।  মাত্র ১২,০০ থেকে ১৮,০০ টাকায় পাচ্ছেন ১২,০০০ থেকে ১৮,০০০ টাকার প্রতিটি কোর্স কুপনকোড: pro-offer  কিভাবে রেজিস্ট্রেশন করবেন দেখুন এখানে    আরো বিস্তারিত এখানে

কেন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশান (SEO) করা হয়?

সার্চ ইঞ্জিন কি-

সার্চ ইঞ্জিন মূলত একটি ওয়েব অনুসন্ধান ইঞ্জিন বা সফট্‌ওয়্যার প্রোগ্রাম যা তথ্য জমা করে এবং প্রয়োজনের সময় সেই তথ্য প্রদান করে। সার্চ ইঞ্জিন একটি স্প্রিপ্টের মাধ্যমে রান হয় এবং নেট দুনিয়ায় ঘুরে বেড়ায়। এটিকে আপনি একটি মাকড়সার সাথে তুলনা করতে পারেন যা পুরো নেট দুনিয়ায় নিজের জাল ছড়িয়ে রাখে তথ্য সংগ্রহের জন্য। আপনি যখন কোন তথ্যের জন্য সার্চ করেন, তখন এটি নিজের কাছে জমা করে রাখা কোটি কোটি ওয়েব পেইজ থেকে বাছাই করে আপনার দরকারি তথ্যটি খুঁজে দেয়।

 

 সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) কি-

সার্চ ইঞ্জিন  অপটিমাইজেশন (Search Engine Optimization) – কে সংক্ষেপে SEO এসইও বলে।এসইও (সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন) হচ্ছে এমন কিছু পদ্ধতি, যার মাধ্যমে বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনের (যেমন : Google, Bing, Yahoo) রেজাল্ট পেজে আপনার সাইট/ব্লগের উপস্থিতি নিশ্চিত করা যায় এবং এর ফলে সাইটে কাঙ্ক্ষিত টার্গেটেড ট্রাফিক আনা সম্ভব হয়।সার্চ ইঞ্জিন এমন একটি তথ্য ভান্ডার যার ভেতরে সকল ওয়েবসাইটের তথ্য ইনডেক্স করা থাকে।এই সকল ওয়েবসাইট এর তথ্য সার্চ ইঞ্জিন একটি ফর্মুলা বা এলগরিদম ব্যবহার করে ইউজারের সামনে হাজির করে।

 

কেন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) করা হয়-

একটি ওয়েবসাইটের সবছেয়ে গুরুত্ত্বপূর্ণ অংশ হলো ওই সাইটের ভিজিটরস।ভিজিটরস না থাকলে সাইট যতই ভাল হোক না কেন তার দাম নেই।আপনার ব্লগ সাইটে যতই মানসম্মত পোস্ট করুন না কেন, কিন্তু সেখানে পোস্টগুলোর ভিজিটরস না থাকলে আপনার লেখা পোস্টগুলোর কোন সার্থকতা থাকবেক না।আর এই জন্যই  ওয়েবসাইটের জন্য ভিজিটর আনা খুব গুরুত্ত্বপুর্ণ।ভিজিটর কিভাবে আসবে আপনার ব্লক বা সাইটে?আমরা কোন কিছু খোজার জন্য বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনের সাহায্য নেই। আর তাই সার্চ ইঞ্জিন ভিজিটরসের সবচেয়ে বড় উৎস হিসেবে স্বীকৃত।

যদি সার্চ ইঞ্জিন আপনার সাইটের লেখাগুলো ভালো অবস্থানে র‍্যাংক করাতে পারলেই আপনিও পাবেন আপনার কাঙ্ক্ষিত ভিজিটরসদেরকে। কিন্তু সেটা কিভাবে সম্ভব কারণ, আপনার মতো অন্য সব ওয়েব মাস্টাররাই চান তাদের সাইট ভালো অবস্থানে আসুক। আর  এই জন্যই প্রয়োজন হয় এসসিও( SEO) বা সার্চ ইঞ্জিন  অপটিমাইজেশন । আমাদের মাঝে আরেকটি ভুল ধারণা,  আমরা মনে করি সার্চ ইঞ্জিনের গাইডলাইন মেনে এসইও করলাম আর সাইট ভালো অবস্থানে গেল। এটিও এক ধরণের ভুল ধারণা। কারণ,সব ওয়েব মাস্টাররাই তাঁর সাইটকে এসইও ফ্রেন্ডলি করে গড়ে তোলে। কিন্তু এটাও একটা প্রতিযোগিতার মতো। যার এসইও যতো ভালো হবে তাঁকে সার্চ ইঞ্জিন তাঁর প্রাপ্য র‍্যাংকটাই দিবে।

 

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন মুলত দুই ধাপের মাধ্যমে করা হয়-

১।  অন পেজ অপটিমাইজেশন-

অন পেজ অপটিমাইজেশন হচ্ছে একটি ওয়েবসাইট/ব্লগকে পরিপূর্ণভাবে সাজানোর যাবতীয় কার্যক্রম অর্থাৎ একটি ওয়েবসাইটকে ভালভাবে তৈরি করার জন্য যা কিছুর প্রয়োজন হয় তার সবটুকুই হচ্ছে অন পেজ অপটিমাইজেশন। ব্লগ বা ওয়েব পেজের মধ্যে আমরা যে সকল অপটিমাইজেশন করে থাকি তাকেই অন পেজ অপটিমাইজেশন বলা হয়। অন পেজ অপটিমাইজেশনের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হল  সঠিক কিওয়ার্ড খোঁজা এবং এর ব্যাবহার, মেটা ট্যাগের ব্যবহার, টাইটেলে ট্যাগের ব্যবহার, বর্ণনা ট্যাগের ব্যবহার, কী ওয়ার্ড সমৃদ্ধ কনটেন্ট বনানো এবং এক্সএমএল সাইটম্যাপ যুক্ত করণ ইত্যাদি।

২। অফ পেজ অপটিমাইজেশন-

অফ পেজ অপটিমাইজেশন হচ্ছে আপনার ব্লগটির কনটেন্টের লিংক বিভিন্ন জনপ্রিয় সাইটে শেয়ার করা, ব্যাক লিংক তৈরী করা, বিভিন্ন ফোরামে জয়েন, ব্লগের প্রচারনাসহ ইত্যাদি উপায়ে জনপ্রিয় করে তোলা। অফ পেইজ অপটিমাইজেন একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং স্থায়ী সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেন যার মাধ্যমে প্রতিযোগিতামুলক রেঙ্কিং এ একটি সাইটকে সার্চ ইঞ্জিনের প্রথম সারিতে অন্তর্ভুক্ত করা যায়। সাধারনত উন্নত ধরনের ব্যাকলিংক,  আর্টিকেল মার্কেটিং, ফোরাম পোস্টিং,  ইত্যাদির মাধ্যমে অফ পেইজ অপটিমাইজেশন করা হয়। অফ পেইজ অপটিমাইজেশন শুধুমাত্র একটি পাতায় নয় এর সঠিক ব্যাবহার আপনার পুরো ব্লগের উপরে পরবে ।

 

কোথায় শিখবেন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO)-

বর্তমানে সার্চ ইঞ্জিন  অপটিমাইজেশন শেখায় এরকম অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যেখান থেকে আপনি এসসিও কোর্সটি করতে পারেন। তবে সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে সব ট্রেইনিং সেন্টার সঠিকভাবে টিকে থাকতে পারছে না।  এক্ষেত্রে আপনি ইশিখন থেকে ঘরে বসে অনলাইনে লাইভ ক্লাসের মাধ্যমে সার্চ ইঞ্জিন  অপটিমাইজেশন কোর্সটি করতে পারেন। কারণ- ইশিখনে রয়েছে দীর্ঘদিন বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস অথবা কোনো প্রতিষ্ঠানে কাজ করছে এমন কিছু প্রফেশনাল ট্রেইনার। ইশিখন থেকে কোর্স করলে যারা হবে আপনার ট্রেইনার। এছাড়াও ইশিখন থেকে কোর্স করলে আপনি কোর্স সম্পর্কিত  অন্যান্য সকল সুবিধাসমূহ পাবেন।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) এর বিশেষ সুবিধা-

  • লাইভ ক্লাস মিস করলে পরের দিন কোর্সের ভেতর উক্ত ক্লাসের ভিডিও রেকর্ডিং ও আলোচিত ফাইল সমুহ পাবেন।
  • লাইভ ক্লাসের সম্পূর্ণ ফ্রি ভিডিও কোর্স, ( শুধুমাত্র এই ভিডিও কোর্সই অনেক প্রতিষ্ঠান হাজার হাজার টাকায় বিক্রি করে।)
  • প্রতিটি ক্লাস শেষে এসাইনমেন্ট জমা দেওয়া। (প্রতিটি এসাইনমেন্ট এর জন্য ১০ মার্ক) প্রতিটি ক্লাসের লাইভ ক্লাসের পাশাপাশি
  • প্রাকটিজ ফাইল পাবেন এবং কনটেন্ট পাবেন।
  • প্রতিটি ক্লাসের প্রথম ১৫ মিনিট আগের ক্লাসের সমস্যাগুলো সমাধান হবে, পরের ১ ঘন্টা মুল ক্লাস শেষ ১৫ মিনিট প্রশ্নোত্তর পর্ব প্রতিটি ক্লাসের শেষে ১০ নাম্বারের মডেল টেস্ট।
  • এই মডেল টেস্ট মার্ক এবং এসাইমেন্ট মার্ক ও নিয়মিত উপস্থিতির উপর ভিত্তি করেই পরবর্তীতে আপনার সার্টিফিকেট এর মান নির্ধারণ হবে।
  • কোর্স শেষে সার্টিফিকেট
  • লাইভ ক্লাস সমুহের ডিভিডি ।

 

 

 

   
   

0 responses on "কেন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশান (SEO) করা হয়?"

Leave a Message

Your email address will not be published.

Varify Certificate

top