সারাদেশে ৩ থেকে ৫ মাসব্যাপী ফ্রিল্যান্সিং কোর্স প্রশিক্ষণ, বৃত্তি+চাকরির সুযোগ।  মাত্র ১২,০০ থেকে ১৮,০০ টাকায় পাচ্ছেন ১২,০০০ থেকে ১৮,০০০ টাকার প্রতিটি কোর্স কুপনকোড: pro-offer  কিভাবে রেজিস্ট্রেশন করবেন দেখুন এখানে    আরো বিস্তারিত এখানে

কিভাবে ওয়েব ডিজাইনার হিসাবে ক্যারিয়ার শুরু করবেন-

ওয়েব ডিজাইন করতে যা যা দরকার হয়-

ওয়েব ডিজাইন কিংবা ওয়েব সাইট তৈরি করার জন্য কিছু লাইট প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ ব্যবহুত হয়। তার মধ্যে অন্যতম হল

  • এইচটিএমএল
  • সিএসএস
  • জাভাস্ক্রিপ্ট
  • জেকুয়েরি
  • বুটস্ট্রাপ

ইত্যাদি এর মধ্যে বুটস্ট্রাপ হল একটি ফ্রেমওয়ার্ক, যার মধ্যে এইচটিএমএল, সিএসএস, জাভাস্ক্রিপ্ট, জেকুয়েরী অর্ন্তভুক্ত রয়েছে। এছাড়াও পিএসডিটুএইচটিএমএল ও এই কোর্সের আওতাভুক্ত।

এছাড়ও ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এর জন্য পিএইচপি, এএসপি, জাভা, পাইথন ইত্যাদি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ প্রয়োজন হয়।

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইন জানতে হলে কি কি শিখতে হবে?

ওয়েব ডিজাইন ক্যারিয়ার-

তবে যাঁরা ওয়েবসাইট ডিজাইনিং নিয়ে ক্যারিয়ার গড়তে চান তাদের জন্য রয়েছে বহুমুখী কাজের সুযোগ।ইন্টারনেট-ভিত্তিক ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে ওয়েব ডিজাইনারদের চাহিদা অনেক। মূলত ওয়েব ডিজাইন হচ্ছে একটা ওয়েবসাইটের জন্য বাহ্যিক অবকাঠামো তৈরি করা।বাংলাদেশ একজন ওয়েব ডিজাইনারের বেতন প্রায় ১৫০০০ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ৫০০০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। এছাড়াও রয়েছে ফ্রীল্যান্স মার্কেট প্লেস এ কাজ করার সুযোগ ।বতর্মানে ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসগুলোতে ক্রিয়েটিভ ওয়েবসাইট ডিজাইন করার জন্য প্রতিটি সাইটে ২০০ ডলার থেকে দুই হাজার ডলার পর্যন্ত পাওয়া যায়। ফ্রীল্যান্স মার্কেট প্লেস এ আপনি কাজ করতে পারেন একজন ফ্রীল্যান্সার হিসেবে । মার্কেট প্লেস এ একজন ওয়েব ডিজাইনার এর রেট ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৪০-৫০ ডলার পর্যন্ত (প্রায়) এর বেশি ও হতে পারে! নতুনদের ঘন্টায় রেট ৪-৫ ডলার। অর্থাৎ প্রতিদিন ৫ ঘন্টা কাজ করলে আপনার প্রতিদিন ২৫ ডলার এবং মাসে ৬০০ ডলার পর্যন্ত আয় করতে পারেন।

 

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইনের চাহিদা

ওয়েব ডিজাইনার হিসাবে ক্যারিয়ার শুরু করবেন কিভাবে-

প্রাথমিক পর্যায়ে দুটো শিখায় জরুরী।ওয়েব ডেভলপিং না জানলে আপনি ভাল ওয়েব ডিজাইনার হতে পারবেন না।আবার ওয়েব ডিজাইন না জানলে ভাল ওয়েব ডেভেলপার হতে পারবেন না।তাই দুটোই আপনার জানা দরকার।কারন একটা আরেকটা পরিপূরক।কিন্তু সেক্ষেত্রে  মাথায় রাখতে হবে যে আপনাকে আগে ওয়েব ডিজাইন শিখতে হবে এবং পরে ডেবলপিং শিখতে হবে।অনেক ক্লাইন্ট চায় একজনকে দিয়েই ডিজাইন এবং ডেভ্লপিং দুটোই করাতে ।আর আপনি যদি দুটোই জানেন তাহলে আপনার ক্লাইন্ট গুলোকে নিজেই শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আপনিই সাপোর্ট দিতে পারবেন।এতে আপনার স্কিল এবং ইনকাম দুটোই বাড়বে।ধীরে ধীরে আপনি  যখন মার্কেটে আপনার অবস্থান তৈরি করে নিতে পারবেন তখন শুধু ডিজাইন বা শুধু ডেভেলপমেন্ট যেকোন একটা করতে পারেন।

আরো দেখুন: কিভাবে ওয়েব ডিজাইনার হিসাবে ক্যারিয়ার শুরু করবেন-

কোথায় কাজ পাবেন-

আমি আগেই বলেছি যে, শুধু HTML and CSS শিখে খুব একটা কাজ পাওয়া যাবে না। কারন বর্তমানে সবাই ডায়নামিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে চায়। তাই আপনাকে ডায়নামিক করা শিখতে হবে। তা না হলে আপনি নিখুত কোডিং করতে পারবেন না। কারন HTML and CSS কোড করার সময় ডায়নামিকের কথা মাথায় রেখে কোড করতে হয়। তা না হলে ডায়নামিক করার সময় বেশ ঝামেলা পোহাতে হয়। আশাকরি ব্যাপারটি বুঝতে পেরেছেন। তারপরেও আপনি কোথায় কোথায় কাজ খুজতে পারেন জেনে নিন।
http://upwork.com
http://freelancer.com
http://themeforest.net

 

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইন কেন শিখবেন?

কোথায় শিখবেন ওয়েব ডিজাইন-

অনলাইনে কাজের কোনো শেষ নেই। বরং ওয়েবসাইট ডিজাইনারের সংকট রয়েছে। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশিদের কাজেরও তাই সম্ভাবনা অফুরন্ত। তবে দুঃখজনক হচ্ছে, আমরা চাইলেও ভালো কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষা নিতে পারি না। হাতে গোনা কয়েকটি মানসম্মত প্রতিষ্ঠান থাকলেও এগুলো আবার ঢাকাভিত্তিক। তাই মফস্বলের কেউ এ সুযোগগুলো পায় না।এক্ষেত্রে আপনি ইশিখন থেকে ঘরে বসে অনলাইনে লাইভ ক্লাসের মাধ্যমে ওয়েব ডিজাইন কোর্সটি করতে পারেন। কারণ- ইশিখনে রয়েছে দীর্ঘদিন বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস অথবা কোনো প্রতিষ্ঠানে কাজ করছে এমন কিছু প্রফেশনাল ট্রেইনার। ইশিখন থেকে কোর্স করলে যারা হবে আপনার ট্রেইনার। এছাড়াও ইশিখন থেকে কোর্স করলে আপনি কোর্স সম্পর্কিত  অন্যান্য সকল সুবিধাসমূহ পাবেন।

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইন কি?

ইশিখনে  ওয়েব ডিজাইন শিখার এর বিশেষ সুবিধা-

1.লাইভ ক্লাস মিস করলে পরের দিন কোর্সের ভেতর উক্ত ক্লাসের ভিডিও রেকর্ডিং ও আলোচিত ফাইল সমুহ পাবেন।
2.লাইভ ক্লাসের সম্পূর্ণ ফ্রি ভিডিও কোর্স, ( শুধুমাত্র এই ভিডিও কোর্সই অনেক প্রতিষ্ঠান হাজার হাজার টাকায় বিক্রি করে।)
3.প্রতিটি ক্লাস শেষে এসাইনমেন্ট জমা দেওয়া। (প্রতিটি এসাইনমেন্ট এর জন্য ১০ মার্ক) প্রতিটি ক্লাসের লাইভ ক্লাসের পাশাপাশি প্রাকটিজ ফাইল পাবেন এবং কনটেন্ট পাবেন।
4.প্রতিটি ক্লাসের প্রথম ১৫ মিনিট আগের ক্লাসের সমস্যাগুলো সমাধান হবে, পরের ১ ঘন্টা মুল ক্লাস শেষ ১৫ মিনিট প্রশ্নোত্তর পর্ব প্রতিটি ক্লাসের শেষে ১০ নাম্বারের মডেল টেস্ট
5.এই মডেল টেস্ট মার্ক এবং এসাইমেন্ট মার্ক ও নিয়মিত উপস্থিতির উপর ভিত্তি করেই পরবর্তীতে আপনার সার্টিফিকেট এর মান নির্ধারণ হবে।
6.কোর্স শেষে সার্টিফিকেট
7.লাইভ ক্লাস সমুহের ডিভিডি ।

 

 

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইন জানতে হলে কি কি শিখতে হবে?

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইনের চাহিদা

আরো দেখুন: কিভাবে ওয়েব ডিজাইনার হিসাবে ক্যারিয়ার শুরু করবেন-

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইন কেন শিখবেন?

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইন কি?

আরো দেখুন:ওয়েব ডিজাইন কি? কিভাবে শিখবেন ওয়েব ডিজাইন?

আরো দেখুন:আসলেই কি আপনি ওয়েব ডিজাইন জানেন?

   
   

0 responses on "কিভাবে ওয়েব ডিজাইনার হিসাবে ক্যারিয়ার শুরু করবেন-"

Leave a Message

Your email address will not be published.

Varify Certificate

top