এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল বিপর্যয়ে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ

বরিশাল নগরীর জগদীশ সারস্বত বালিকা বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল বিপর্যয়ের কারণে প্রধান শিক্ষক শাহ আলমকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা।

এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল বিপর্যয়ে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ।

বরিশাল নগরীর জগদীশ সারস্বত বালিকা বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল বিপর্যয়ের কারণে প্রধান শিক্ষক শাহ আলমকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা। রোববার দুপুর ২টার দিকে পরীক্ষার্থীদের অভিভাবকরা ফল বিপর্যয়ের কারণে জগদীশ সারস্বত বালিকা বিদ্যালয়ে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহ আলম অভিভাবকদের রোষানল থেকে বাঁচতে দোতলার একটি কক্ষে আশ্রয় নেন। অভিভাবকরা বিদ্যালয়ের সেই কক্ষটি ঘিরে রেখেছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিভাবকদের শান্ত করার চেষ্টা করছেন।

নগরীর জগদীশ সারস্বত বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মজিদ জানান, গত বছর এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৮ শিক্ষার্থী। এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে মাত্র চারজন শিক্ষার্থী। এবছর এসএসসি পরীক্ষায় ১৯৪ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। ফেল করেছে ৩৬। গত এক যুগেও এত খারাপ ফল হয়নি। এসব কারণে পরীক্ষার্থীদের অভিভাবকরা স্কুলে এসে ফলাফল বিপর্যয়ের কারণে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। সেইসঙ্গে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করেন।

সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মজিদ জানান, গত ৬ মাস আগে শাহ আলম প্রধান শিক্ষক হিসেবে এ বিদ্যালয়ে যোগ দেন। অভিভাকরা মনে করছেন প্রধান শিক্ষকের অদূরদর্শিতা, শিক্ষার্থীদের পড়াশুনায় উদাসীনতা ও অব্যবস্থাপনার কারণে ফলাফল বিপর্যয় হয়েছে।

বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের (ওসি) মো. আওলাদ হোসেন জানান, অভিভাকদের বিক্ষোভের খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ সদস্য পাঠানো হয়েছে।

 

 

আরো পড়ুন:

১০৯ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করেনি

এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ

   
   

0 responses on "এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল বিপর্যয়ে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ"

Leave a Message

Your email address will not be published.