ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন

সহজ কথায়, ওয়ার্ডপ্রেস হল একটি সিএমএস (CMS) বা কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। আরেকটু বিশদ বলতে গেলে, ওয়ার্ডপ্রেস হল পিএইচপি ও মাইএসকিউএল ভিত্তিক একটি বিশেষ অনলাইন টুল যার মাধ্যমে ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়। আর উইকিপিডিয়ার ভাষ্য অনুসারে – ওয়ার্ডপ্রেস হল ফ্রী ও ওপেনসোর্স ব্লগিং টুল এবং একটি শক্তিশালী কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম যা পিএইচপি এবং মাইএসকিউএল এর উপর ভিত্তি করে তৈরিকৃত।

আরো দেখুন:ওয়ার্ডপ্রেস

ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন কি?

ওয়ার্ডপ্রেস মুলত একটি  ওয়েবসাইট তৈরি করার ওপেন সোর্স অ্যাপলিকেশন। যা দিয়ে কোম্পানির ওয়েব সাইট  তৈরি করা যায়। কিন্তু প্রত্যেক কম্পানির ক্যাটেগরি ভিন্ন , তাই তারা চায় তাদের ওয়েব সাইট ইউনিক  হোক।  ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে কাজ করার জন্য ওয়ার্ডথিম কে কাস্টমাইজ বা এডিট করতে হয়। একেউ মুল থিম ডেভেলপমেন্ট বলা হয়।  ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশনকেই ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট বলা হয়। ওয়েবের জন্য এটিই বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় সিএমএস।

কিভাবে ক্যারিয়ার গড়বো ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশনে?

প্রতিদিন হাজার হাজার ওয়ার্ডপ্রেস থিম সেল হয় থিম মার্কেটপ্লেস গুলোতে। তবে গ্রাহকের চাহিদা অনুসারে সব গুলো থিম রেডি থাকেনা ওগুলোকে গ্রাহকের ডিমান্ড অনুসারে কাস্টমাইজ করে নিতে হয়। তাই ফ্রিল্যাসিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে রয়েছে ওয়ার্ডপ্রেস থিম  কাস্টমাইজেশনের প্রচুর কাজ। সুতরাং বুঝতেই পারছেন ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশনের কাজ শিখে আপনি  ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে সহজে ক্যারিয়ার গড়তে পারেন।

ভাবছেন ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন শিখবেন?

হ্যাঁ , ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন হতে পারে আপনার পছন্দের কাজ। যারা ফ্রিল্যান্সিং বা ইন্টারনেটে ক্যারিয়ার গড়বেন ভাবছেন তারা বেঁচে নিতে পারেন ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশনকে। তবে খুব কম সংখ্যক প্রতিষ্ঠান আছে যারা প্রফেশনাল মানের ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশনের কোর্স করায়। তবে চিন্তার কারণ নেই এখন আপনি চাইলে ঘরে বসেই রেপটোতে শিখতে পারেন প্রফেশনাল মানের ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশনের কোর্স।

 

কোথায় শিখবেন ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন-

বর্তমানে ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন শেখায় এরকম অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যেখান থেকে আপনি থিম কাস্টমাইজেশন কোর্সটি করতে পারেন। তবে সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে সব ট্রেইনিং সেন্টার সঠিকভাবে টিকে থাকতে পারছে না। এক্ষেত্রে আপনি ইশিখন থেকে ঘরে বসে অনলাইনে লাইভ ক্লাসের মাধ্যমে থিম ডেভলপমেন্ট কোর্সটি করলে উপকৃত হবেন। কারণ- ইশিখনে রয়েছে দীর্ঘদিন বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস অথবা কোনো প্রতিষ্ঠানে কাজ করছে এমন কিছু প্রফেশনাল ট্রেইনার। ইশিখন থেকে কোর্স করলে তারা হবে আপনার ট্রেইনার। এছাড়াও ইশিখন থেকে কোর্স করলে আপনি অন্যান্য যসকল সুবিধাসমূহ পাবেন।

ইশিখনে ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন এর বিশেষ সুবিধা-

  • লাইভ ক্লাস মিস করলে পরের দিন কোর্সের ভেতর উক্ত ক্লাসের ভিডিও রেকর্ডিং ও আলোচিত ফাইল সমুহ পাবেন।
  • লাইভ ক্লাসের সম্পূর্ণ ফ্রি ভিডিও কোর্স, ( শুধুমাত্র এই ভিডিও কোর্সই অনেক প্রতিষ্ঠান হাজার হাজার টাকায় বিক্রি করে।)
  • প্রতিটি ক্লাস শেষে এসাইনমেন্ট জমা দেওয়া। (প্রতিটি এসাইনমেন্ট এর জন্য ১০ মার্ক)
  • প্রতিটি ক্লাসের লাইভ ক্লাসের পাশাপাশি প্রাকটিজ ফাইল পাবেন এবং কনটেন্ট পাবেন।
  • প্রতিটি ক্লাসের প্রথম ১৫ মিনিট আগের ক্লাসের সমস্যাগুলো সমাধান হবে, পরের ১ ঘন্টা মুল ক্লাস শেষ ১৫ মিনিট প্রশ্নোত্তর পর্ব প্রতিটি
  • ক্লাসের শেষে ১০ নাম্বারের মডেল টেস্ট। এই মডেল টেস্ট মার্ক এবং এসাইমেন্ট মার্ক ও নিয়মিত উপস্থিতির উপর ভিত্তি করেই পরবর্তীতে আপনার সার্টিফিকেট এর মান নির্ধারণ হবে।
  • কোর্স শেষে সার্টিফিকেট
  • লাইভ ক্লাস সমুহের ডিভিডি ।

ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন কোর্স  শেষ করার পর আয় করবেন যেভাবে:

  •  আপওয়ার্ক , ফাইভর এনভাটো মার্কেটে টেমপ্লেট বিক্রি।
  • ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে যেকোন আইটি কম্পানিতে চাকরি।
  • আপওয়ার্ক ও ফাইবারে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট সর্ম্পকিত কাজ।

 

ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন শিখতে যা লাগবে-

  • ইন্টারনেট কানেকশসহ একটি কম্পিউটার
  • কম্পিউটার ও ইন্টারনেট এর প্রাথমিক ধারণা
  • একটি হেডফোন (ল্যাপটপ হলে হেডফোন আবশ্যক নয়)।

 

   
   
February 3, 2019 | 3 weeks আগে

0 responses on "ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন"

Leave a Message

Your email address will not be published.

Varify Certificate

top